Monday, May 16, 2022
First Bangla Newspaper In Buffalo,NY


বাফেলো- টেসলা ও অ্যামাজনে নিয়োগ চলছে

By বাফেলো বাংলা , in Blog , at ফেব্রুয়ারী 9, 2020

বাফেলোবাংলা রিপোর্ট: বাফেলো’তে টেসলা এবং অ্যামাজন ফুলফিলমেন্ট সেন্টার সেন্টারসহ বিভিন্ন কোম্পানীতে নিয়োগ চলছে। অ্যামাজন ছাড়া অধিকাংশ কোম্পানী এজেন্সীর মাধ্যমে টেসলা সোলার ও মোটরসহ ২০ টি কোম্পানী বিভিন্ন পজিশনে নিয়োগ দিচ্ছে। বাফেলো’র ৮৯২ মেইন স্ট্রিটে প্রতিষ্ঠানটি অফিসে সরাসরি গেলেই নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু করে।কাজ শুরু করতে ২ সাপ্তাহ থেকে ৪ সাপ্তাহ পর্যন্ত সময় লাগে।এ সময়ের মধ্যে ড্রাগ টেষ্ট, ব্র্যাকগ্রাউন্ড চেক ও ওরিয়েণ্টেশন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর শিফট চয়েজের উপর নির্ভর করে কতো দ্রুত আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন। সাধারণত ৪ টি শিফটে টেসলাতে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। শিফট ১২ ঘন্টা করে সাপ্তাহে ৩ দিন এবং পরের সাপ্তাহে ৪ দিন। এ শিফট সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যা ৭ টা, রবিবার থেকে মঙ্গলবার, পরের সাপ্তাহে রবি-বুধ।সি শিফটও একই ধরনের। শুধু সন্ধ্যা ৭ থেকে সকাল ৭ টা।বি শিফট বৃহ-শনিবার, পরের সাপ্তাহে আবার বুধ-শনিবার, সকাল ৭ টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা। ডি শিফটও একই ধরনে, শুধু সন্ধ্যা ৭ টা-সকাল ৭টা। এসব শিফটে আওয়ারলি ১৪ থেকে ১৭.৮৩ ডলার পর্যন্ত বেতন দেয়া হয়। প্রাথমিকভাবে ৯০ দিনের জন্য এজেন্সির মাধ্যমে নিয়োগ দেয়া হয়। পরে টেসলাতে স্থায়ী নিয়োগের প্রসেসিং শুরু করা হয়। গত কয়েক মাসে টেসলা কোম্পানীতে শতাধিক লোক কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। পূর্বেই টেসলাতে ৫০ মতো বাংলাদেশী কর্মরত ছিলেন। এখন প্রায় ২শ বাংলাদেশী টেসলাতে কাজ করছে বলে সংশ্লিষ্টদের ধারণা।
টেসলা ও ইমাজিন স্টাফিং এর সমন্বয়কারী ম্যাকেঞ্জি জানান, আমাদের আরো জনবল প্রয়োজন, তোমরা চাইলে তোমাদের আন্তীয় স্বজন বা পরিচিতদের রেফার করতে পারো। টেসলার চাকুরীবিদের ৭৫ ডলারের বোনাসও ঘোষণা করা হয়।
অ্যামাজন ফুলফিলমেন্ট সেন্টার: বাফেলো’র ল্যাংকেস্টারে অবস্থিত অ্যামাজন ফুলফিলমেন্ট সেন্টারও নিয়োগ চলছে।সরাসরি অ্যামাজনের ওয়েব সাইট যঃঃঢ়ং://ধসধুড়হ.ভড়ৎপব.পড়স রেজিস্ট্রেশন করে আবেদন করতে হবে। কয়েক দিন পর পর কোম্পানীটি কর্মী নিয়োগের ঘোষণা দেয়। আবেদনের এক থেকে দুই সাপ্তাহের মধ্যে ট্রেনিংয়ের মাধ্যমে কাজ শুরু করে দেয়া যায়। দিনে ৪ ঘন্টা করে দুই শিফট কাজ করা যায়। ৩ দিনে সবোর্চ্চ ৩০ ঘন্টা পর্যন্ত কাজ করা যায়। বেতন ঘন্টায় ১৫ থেকে ১৬ ডলার। অ্যামাজনে শতাধিক বাংলাদেশী কাজ করে বলে জানিয়েছেন এমডি সাগর।তিনি অ্যামাজনে দুই বছর ধরে কাজ করছেন।

bn_BDBengali